সংবাদ শিরোনাম :
ঝালকাঠিতে ৭২০ হেক্টর জমিতে আমড়ার চাষ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি’র মাতা মাজেদা বেগমের ইন্তেকাল নোবেল প্রাইজ ও নোবেলের জীবন-গল্প! ঝালকাঠিতে প্রজনন স্বাস্থ্য ও অধিকার সম্পর্কে কর্মশালা ঝালকাঠিতে তরুণ উদ্যোক্তাদের সংর্বধনা প্রদান নলছিটিতে হাফেজদের কোরআন বিতরণ ও দুঃস্থদের অনুদান প্রদান ঝালকাঠিতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতির কমিটি গঠন আওড়াবুনিয়া-ঢাকা নৌ রুটে এমভি সপ্তবর্ণা-১০ লঞ্চ চলাচল শুরু কাঠালিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাথে আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের মতবিনিময় কাঠালিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন

Advertisement

উজিরপুরে নারী ইউপি সদস্যের অনিয়ম ও দুর্নীতির তদন্ত শুরু, এলাকাবাসীর বিক্ষোভ মিছিল

উজিরপুরে নারী ইউপি সদস্যের অনিয়ম ও দুর্নীতির তদন্ত শুরু, এলাকাবাসীর বিক্ষোভ মিছিল

উজিরপুরের হারতায় সংরক্ষিত ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

উজিরপুর প্রতিনিধি ঃ
বরিশালের উজিরপুরের হারতা ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের মহিলা ইউপি সদস্য শান্তনা মল্লিকের বিরুদ্ধে বয়স্ক, বিধবা, মাতৃত্বকালীনভাতা ও আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর বরাদ্দের নামে ঘুস বাণিজ্যের অভিযোগে তদন্ত শুরু করেছে উপজেলা প্রশাসন। তদন্তকালে শত শত বিক্ষুব্ধ নারী ও পুরুষ দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে। ১৭ আগস্ট সোমবার বেলা ১১ টায় ৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘটনাস্থলে তদন্ত কার্যক্রমে উপস্থিত হন। বেলা ১২টায় ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রফুল্ল মল্লিকের নেতৃত্বে প্রথমে কালবিলা নামক স্থানে পরে দুপুর ২ টায় হারতা বাজার প্রধান সড়কে দীর্ঘক্ষণ ভুক্তভোগী পরিবাররা বিক্ষোভ মিছিল করে। উল্লেখ্য ১৬ আগস্ট কালবিলা গ্রামের হতদরিদ্র প্রিয়লাল মল্লিক, রতন মল্লিক, সমীরণ রায়, ক্ষীতিশ বল্লভ, সীমা মল্লিক, বিজলি মল্লিক, শঙ্কর মল্লিক, দিলীপ কুমার বিশ্বাস, অঞ্জু বৈরাগী, সীমা মল্লিক, হরেন্দ্রনাথ মল্লিক, কালিপদ মল্লিক, লক্ষী ফলিয়া অভিযুক্ত মহিলা ইউপি সদস্য শান্তনা মল্লিকের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এ ব্যাপারে নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে ১৭ আগস্ট সোমবার বেলা ১১ টায় উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা অয়ন সাহা ও মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কাজী ইশরাত জাহান তদন্তে যান। তদন্ত চলাকালীন সময়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বাগবিতন্ডা হয়। এরপর বিক্ষুব্ধ ভুক্তভোগীরা ইউপি সদস্য শান্তনা মল্লিকের পদত্যাগের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে। ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা যায় ইউপি সদস্য শান্তনা মল্লিক অভিযুক্তদের কাছ থেকে সরকারি সাহায্য, ভাতা ও আশ্রয়ণ প্রকল্পে ঘর পাওয়ার নাম করে বিভিন্ন অঙ্কের টাকা নেয়। অনেকে কিছু টাকা দিলেও আরও টাকা দাবি করেন। এলাকার শতাধিক ব্যক্তি অভিযোগ করে বলেন মহিলা ইউপি সদস্য শান্তনা মল্লিক দুর্নীতির চরমে পৌঁছেছে। তিনি ঘুষ বাণিজ্য ছাড়া কিছুই বোঝেন না। ঘুষ ছাড়া মিলছে না কোন কার্ড। হতদরিদ্ররা সরকারি সকল সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে তার কারণে। এমনকি সরকারি কম্বল বিতরণেও ১ শত টাকা ঘুষ বাণিজ্য করেছে। তাকে অপসারণ করার দাবি জানিয়ে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেন। সঠিক বিচার না পেলে এলাকাবাসী পরবর্তীতে কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি করবে বলে ঘোষণা দেয়। অভিযুক্ত শান্তনা রানী জানান, তার সাথে জমি নিয়ে বিরোধের কারণেই কতিপয় লোক অপপ্রচার চালাচ্ছে।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020 www.jhalakatibarta.com
Developed BY Website-open.com
error: Content is protected !!