সংবাদ শিরোনাম :

Advertisement

ঝালকাঠিতে করোনা সুরক্ষা সত্ত্বেও স্থানান্তরিত কুরবানির পশুর হাট ক্রেতা শূন্য!

ঝালকাঠিতে করোনা সুরক্ষা সত্ত্বেও স্থানান্তরিত কুরবানির পশুর হাট ক্রেতা শূন্য!

ঝালকাঠিতে করোনা সুরক্ষা ব্যবস্থা থাকা সত্তে¡ও স্থানান্তরিত ক্রেতা শূন্য কুরবানির পশুর হাটের একাংশ

দিবস তালুকদার ঃ
আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে ঝালকাঠিতে শনিবার থেকে শুরু হয়েছে কোরবানীর পশুর হাট। করোনা ইস্যুতে ক্রেতা-বিক্রেতাদের স্বাস্থ্যবিধির বিষয়টি বিবেচনা করে এবারের হাটটি শহরের গুরুধাম এলাকা থেকে স্থানান্তর করে শহরতলীর বিকনা এলাকায় বীরশ্রেষ্ট ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর ষ্টেডিয়ামে নেওয়া হয়েছে। কোভিড-১৯ নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে এবার ক্রেতারা অনলাইনে এবং খামার থেকে কিনছেন পছন্দের গরু ও ছাগল। তাই নির্ধারিত পশুর হাটে এর প্রভাব পড়েছে। হাটে আগত ক্রেতাদের জন্য হাত ধোয়ার পানি/সাবান, জীবাণুনাশক স্প্রে, নিরাপত্তা বেষ্টনী, জাল টাকা শনাক্তকরণ বুথ, পশু চিকিৎসার জন্য ভেটেরিনারী মেডিকেল টিম প্রস্তুত রাখা হয়েছে। খেলার মাঠের ক্ষয়ক্ষতি যাতে না হয় সেজন্য ষ্টেডিয়ামের মূল গেট বন্ধ রাখা হয়েছে। এতো আয়োজনের পরেও ঝালকাঠির এই হাটে প্রথম দিন থেকেই ক্রেতা শূন্য রয়েছে। আর তাই বিভিন্ন জেলা থেকে আসা গরু বিক্রেতারা (ব্যাপারী) পড়েছেন দুঃশ্চিন্তায়। তবে হাটের ইজারাদার আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, ঈদের ২ দিন আগে এ হাটটি জমে উঠবে। কারণ শহরে পশু পালনের জায়গা না থাকায় ক্রেতারা শেষ মুহ‚র্তে পশু কিনবেন। ঝালকাঠি পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রেজাউল করিম জাকির বলেন, হাটের নিরাপত্তার কথা ভেবে আমি নিজ খরচে ইতিমধ্যে ৬ টি সিসি ক্যামেরা বসিয়েছি। হাটে আসা যাওয়ার পথটি আলোকিত রাখার ব্যবস্থা করেছি যাতে সন্ধ্যার পরে নির্বিঘেœ ক্রেতারা হাটে আসতে পারেন। এছাড়াও এ হাটে কাক্সিক্ষত বেচা-কেনা না হলে ইজারাদারদের ক্ষতি পুষিয়ে দেয়ার জন্য আমি প্রস্তুত রয়েছি।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020 www.jhalakatibarta.com
Developed BY Website-open.com
error: Content is protected !!