সংবাদ শিরোনাম :

Advertisement

রাজাপুরে জোরপূর্বক কৃষকের জমির গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

রাজাপুরে জোরপূর্বক কৃষকের জমির গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

রাজাপুর সংবাদদাতা:
রাজাপুরের সাকরাইল গ্রামের চেয়ারম্যান বাড়ির ব্রীজসংলগ্ন এলাকার খালের পাড়ে সরকারিভাবে বন্দোবস্ত পাওয়া কৃষক মৌজে আলী ও তার ছেলে কৃষক হালিম হাওলাদারের জমির বিভিন্ন প্রজাতির ২০টি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেওয়ায় প্রতিপক্ষের অব্যাহত হুমকিতে পরিবার নিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন এ কৃষক পরিবার। ১৬ জুলাই দুপুরে কৃষক মোঃ হালিম হাওলাদার অভিযোগ করে জানান, ৯ জুলাই বিকেলে ওই এলাকার মৃত মনা হাওলাদারের ছেলে প্রতিপক্ষ শহিদুল্লাহ হাওলাদারসহ কয়েকজন মিলে সরকারিভাবে বন্দোবস্ত পাওয়া জমিতে রোপণকৃত বড় সাইজের ১০ টি মেহগনি, ৩টি রেইনট্রি, ৫টি চাম্পুলসহ বিভিন্ন প্রজাতির ২০টিরও বেশি গাছ কাটা শুরু করে। এ সময় বাধা দিতে গেলে ধারালো দা নিয়ে তাকে ও তার বৃদ্ধ বাবাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ধাওয়া করে এবং গালমন্দ, বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি, খুন জখমের হুমকি দেয়। জীবনের ভয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করলে প্রতিকক্ষরা বিকেল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত সব বড় সাইজের ২০ টিরও বেশি গাছ কেটে স্বমিলে নিয়ে যায়। ১৯৯২-৯৩ সালে জমি পাওয়ার পর গাছগুলো রোপন করা হয়েছিল। এ ঘটনার দিন রাতে পুলিশকে জানানো হলে পুলিশ অভিযোগ দিতে বললে হালিম ১০ জুলাই রাজাপুর থানায় অভিযোগ দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরির্দশন করে গাছের গোড়ার ছবি তুলে আনে। কিন্তু ঘটনার ৭ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয়নি। বর্তমানে প্রতিপক্ষের অব্যাহত হুমকিতে গর্ভবতী স্ত্রী, ২ শিশু সন্তান ও বৃদ্ধ বাবাসহ পরিবারের লোকজন নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলেও অভিযোগ করেন হালিম। অভিযুক্ত শহিদুল্লাহ হাওলাদার জানান, তিনি কোন গাছ কাটেননি। এক ব্যক্তির কাছ থেকে তিনি জমি ক্রয় করায় সেই ব্যক্তির সাথে বিরোধ থাকায় তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। অভিযোগ নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাওয়া রাজাপুর থানার এসআই বদিউজ্জামান জানান, স্থানীয় বিরোধকে কেন্দ্র করে গাছ কাটার ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি তদন্তাধীন আছে,স্থানীয়দের থানায় ডেকে প্রকৃত ঘটনা জেনে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020 www.jhalakatibarta.com
Developed BY Website-open.com
error: Content is protected !!