সংবাদ শিরোনাম :

Advertisement

ত্রাণ বিতরণে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ উপেক্ষা অনিয়ম, স্বজনপ্রীতি আর দুর্নীতির অভিযোগ গাভা ইউপি সদস্য মনিরের বিরুদ্ধে

ত্রাণ বিতরণে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ উপেক্ষা অনিয়ম, স্বজনপ্রীতি আর দুর্নীতির অভিযোগ গাভা ইউপি সদস্য মনিরের বিরুদ্ধে

বিশেষ সংবাদদাতা ঃ ঝালকাঠি সদর উপজেলার ১নং গাভা রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের সদস্য মনিরুল ইসলাম মনির ওরফে মনিরুজ্জামান এর বিরুদ্ধে খাদ্য সহায়তা ত্রাণ সামগ্রী ও সরকারি সহায়তা বিতরণে স্বজনপ্রীতি, অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। বৈশ্বিক মহামারি কোভিড-১৯ নভেল করোনাভাইরাস জনিত কারণে সাধারণ ও খেটে খাওয়া মানুষের জীবন জীবিকা নির্বাহে সরকারের খাদ্য সহায়তা (ত্রাণ) বিতরণ নীতিমালা ও প্রধানমন্ত্রী নির্দেশে উপেক্ষা করে মনির তার নিজের সমর্থক, আত্মীয়-স্বজন বিতরণ ও আত্মসাত করেছে। গবির ও খেটে খাওয়া দিন মজুর ও অসহায় কোন মানুষের মধ্যেই খাদ্য সহায়তা ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ না করার অভিযোগ উঠেছে। কিছু লোক খাদ্য সহায়তা পেলেও তাও নাকি নগদ অর্থের বিনিময়ে সরেজমিনে তথ্য অনুসন্ধানকালে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তিরা এ তথ্য জানিয়েছে। এছাড়াও বয়স্কভাতা, বিধবা ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, ভিজিডি কার্ডসহ সরকারী অনুদান জনগণকে দেয়ার প্রতিশ্রæতি দিয়ে এলাকার সাধারণ মানুষের কাছ থেকে নগদ অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে এই ইউপি সদস্য মনিরুল ইসলাম মনির। যাদের কাছ থেকে নগদ অর্থ পাচ্ছেন না তাদেরকে কোন সরকারী সুযোগ সুবিধা দিচ্ছেন না। মনির করো কারো কাছে সরকারি ভাতা চুক্তিতে বিক্রি করে। তাহলো কেউ নদগ না দিতে পারলে ভাতার প্রথম কিস্তি থেকে তার ভাগ নিয়ে নেন। সৎ নিষ্ঠাবান ন্যায় পরায়ন কাচাবালিয়ার আদর্শবান স্কুল শিক্ষকের ছেলে হওয়ায় মনিরুল ইসলাম মনির ওরফে মনিরুজ্জামানকে ইউপি সদস্য নির্বাচিত করে কাচাবালিয়াবাসী সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর দিনে দিনে অনিয়ম, স্বজনপ্রীতি আর দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়েন মনির। এই পথ ধরেই অর্থ বিত্তের মালিক হন তিনি সরেজমিনে গেলে তথ্য প্রদান করিয়া নাম প্রকাশ না করার শর্ত ও তার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে কথা না বলার কারণ কি জানতে গিয়ে জানা যায় মনিরের রয়েছে ক্যাডার বাহিনী ও এলাকার একজন রাজনৈতিক নেতার মদদে। যে কারণে জীবনের নিরাপত্তার ভয়ে কেউ তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পায়না। বৈশ্বিক এই মহামারি করোনাভাইরাসজনিত কারণে দেশবাসীকে খাদ্য সহায়তা দেয়ার নির্দেশাবলী ও প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ উপেক্ষা করে মনির তার মনগড়াভাবে খাদ্য সহায়তা ত্রাণ বিতরণ ও সরকারী সহায়তায় অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পুলিশ সুপার বরাবরে এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষরিত অভিযোগ দায়ের করেছে। এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য মনির বলেন, আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা আমার নামে অপপ্রচার চালাচ্ছে। জেলা প্রশাসক বলেন, এধরণের দুই তিনটা অভিযোগ পাওয়া গেছে। এগুলোর বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020 www.jhalakatibarta.com
Developed BY Website-open.com
error: Content is protected !!